দেশজুড়েপ্রিয় চট্রগ্রাম

বোয়ালখালী পৌর নির্বাচনে প্রশাসনের পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ কাউন্সিলর প্রার্থীর

এম মনির চৌধুরী রানা : চট্টগ্রামে বোয়ালখালী পৌরসভা নির্বাচনে অশুভ শক্তির প্রভাবে কাটিয়ে ভোটারদের নানা রকম ভয়ভীতি দেখিয়ে ঘরে ঘরে তল্লাশী চালিয়ে গ্রেপ্তার আতংক সৃষ্টি করে ভোটের পরিবশে নষ্ট করার অভিযোগ উঠেছে বোয়ালখালী থানা পুলিশের বিরুদ্ধে।

আজ (১৭ সেপ্টেম্বর) শুক্রবার বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে আয়েজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে বোয়ালখালী পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী এসএম মিজানুর রহমান এ অভিযোগ করেন।

কাউন্সিলর প্রার্থী এস এম মিজানুর রহমান সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করে বলেন, তার বাবা মুক্তিযোদ্ধাকালীন প্লাটুন কমান্ডার ছিলেন। পৌর নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার পর থেকে তিনি প্রচার প্রচারণা চালিয়ে আসছেন।

কিন্তু ভোট গ্রহনের কয়েকদিন আগে থেকে এক অশুভ শক্তি তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছেন এবং নির্বাচন থেকে সরে যেতে নানা রকম হুমকী ও তার ভোটার, কর্মী সমর্থকদের ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে। পোস্টার ব্যানারে লিফলেট ছিড়ে প্রচারণার কাজে বাধা দেয়া হচ্ছে।

এমতাবস্থায় গত ১৬ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার রাতে শুরু হয় তার নির্বাচনী এলাকার ভোটার কর্মী সমর্থকদের উপর পুলিশি নির্যাতন। মুক্তিযোদ্ধা রিভার ভিউ এলাকায় তার কর্মী সমর্থকদের তালিকা বানিয়ে ঘরে ঘরে পুলিশ তল্লাশী শুরু করেছে।

গত কয়েকদিন ধরে ২০/২৫ জন পুলিশ তার নির্বাচনী কাজে নিয়োজিত কর্মী সমর্থকদের উপর মার মুখী আচারণ করছেন। পুলিশের এ ধরনের আচারণে বাকরুদ্ধ ও হতবাক এলাকার জনগণ ও সাধারণ ভোটারগন।

বোয়ালখালীতে ৯টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে নির্বাচন অনুষ্টিত হলেও অদৃশ্য শক্তির বলে ও ইশারায় পুলিশ অতি উৎসাহি হয়ে শুধু তার এলাকার ভোটার কর্মীদের উপর দমন পীড়ন, নিযার্তন ও হয়রাণী করছেন। ঘরে ঘরে গিয়ে তল্লাশি ও গ্রেপ্তার আতংক সৃষ্টি করে ভোটের পরিবেশ নষ্ট করছেন পুলিশ।

মানুষের ভোটের অধিকার নিশ্চিত করে নিরপেক্ষ, অবাধ ও সুষ্ট নির্বাচন অনুষ্টানের জন্য প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সকলের কাছে দাবী জানান তিনি।
জানতে চাইলে বোয়ালখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবদুল করিম বলেন, এ বিষয়ে তিনি অবগত নন বলে জানান।