পটিয়ার খবরপ্রিয় চট্রগ্রাম

পটিয়ায় বিপুল পরিমাণ বন্দুকের কার্তুজ উদ্ধার

পটিয়া নিউজ. নেট :চট্টগ্রামের পটিয়ার জঙ্গলখাইন গ্রামের এক বাড়ি থেকে পটিয়া থানা পুলিশ বিপুল পরিমাণ বন্দুকের কার্তুজ উদ্ধার করেছে। এসময় বাড়ির মালিক জসীম উদ্দীন বাড়িতে না থাকায় তাকে আটক করা যায়নি।

পটিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম মজুমদার জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ কার্তুজ উদ্ধার করা হলেও কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি।

সোমবার রাতে পটিয়া উপজেলার জঙ্গলখাইন ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের জসিম উদ্দীন ওরফে মাইকেল জসিমের ঘর থেকে ৩০০ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করেছে পুলিশ । সে সালেহ আহমদের পুত্র। তার বিরুদ্ধে পটিয়া থানায় খুন, ছিনতাই ও ইয়াবা ব্যবসাসহ ৮টি মামলা রয়েছে। উদ্ধারকৃত কার্তুজগুলো নতুন। ধারনা হচ্ছে এসব কার্তুজ সন্ত্রাসী কাজে ব্যবহারের জন্য সম্প্রতি এনেছেন। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, মাইকেল জসিম ছিনতাইসহ বিভিন্ন অপরাধের সঙ্গে সম্পৃক্ত।

এত বিপুল পরিমাণ কার্তুজ উদ্ধারের সংবাদ এলাকায় আতংক দেখা দেয়। ধারণা করা হচ্ছে সন্ত্রাসীদের নিকট জসীম অস্ত্র ও গোলাবারুদ বিক্রি ও সরবরাহে জড়িত।

পটিয়া থানা পুলিশ গত কয়েকদিন ধরে হেফাজতের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করতে অভিযান চালাচ্ছে। সোমবার রাতে জঙ্গলখাইনে হেফাজতের কয়েকজনকে পুলিশ গ্রেফতার করতে যায় এবং এক পযার্য়ে সন্ত্রাসী জসিমের বাড়িতে অভিযান চালায়। এসময় সন্ত্রাসী জসিমের ঘরের ছাদে পরিত্যক্ত অবস্থায় ৩শ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করে।

ওসি রেজাউল করিম মজুমদার জানিয়েছেন, পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। শুধু হেফাজত নয় সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, মাদক ও অস্ত্র ব্যবসায়ীসহ চিহ্নিত অপরাধীদের ধরতে অভিযান অব্যহত রয়েছে।

৩’শ পিচ কার্তুজ উদ্ধারের ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।