জাতীয়দেশজুড়েপটিয়ার খবরপ্রিয় চট্রগ্রামরাজনীতি

আমি একজন অভিভাবক হারিয়েছিঃ শিল্পপতি আহমদ শফির মৃত্যুতে হুইপ সামশুল হক চৌধুরী

আমি একজন অভিভাবক হারিয়েছি, শিল্পপতি আহমদ শফির ইন্তেকালের খবর শুনে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে পটিয়ার এমপি ও জাতীয় সংসদের হুইপ আলহাজ্ব সামশুল হক চৌধুরী এ অনুভূতি ব্যক্ত করেন।

হুইপ সামশুল হক চৌধুরী বলেন,

পটিয়ার একজন গর্বিত সন্তান ও আলোকিত মানুষের বিদায়ে আমি শুধু আমার এলাকারই নয় আমার একজন আপনজনকে হারিয়েছি।

শোভনদন্ডী রশিদাবাদ আরফা করিম উচ্চ বিদ্যালয়ের সম্মানিত প্রতিষ্ঠতা সভাপতি , ফেডারেল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির লিঃ সম্মানিত চেয়ারম্যান, চট্রগ্রাম শহরের শফি এন্ড কোং লিঃ এর স্বত্বাধিকারী, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ও দানবীর ব্যক্তিত্ত্ব আহমদ শফি আজ সন্ধ্যায় ইন্তেকাল করেন।

তিনি জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ আলহাজ্ব সামশুল হক চৌধুরীর এমপির অত্যন্ত শ্রদ্ধাভাজন মুরব্বী ছিলেন। যেকোন প্রয়োজনে তিনি তার পরামর্শ নিতেন।

তিনি আহমদ শফির জন্য আল্লাহতায়ালার কাছে প্রার্থনা জানান, যেন আল্লাহ মরহুমকে জান্নাতুল ফেরদৌস নসীব করেন। সেই সাথে শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

উল্লেখ্য, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক আলমগীর খালেদ ও বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা মিজানুর রহমানের ভগ্নিপতি রশিদাবাদ গ্রামের কৃতিসন্তান আহমদ শফি নিজ এলাকায় একটি পুর্নাঙ্গ শিক্ষা কমপ্লেক্স গড়ে তোলেন।

আহমদ শফি ছিলেন একাধারে একজন সমাজ সংস্কারক,শিক্ষানুরাগী ও শিল্পপতি। আলোকিত মানুষটির মৃত্যুতে রশিদাবাদ গ্রামে সর্বসাধারণ মানুষসহ চট্টগ্রামে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।