বিনোদন

ফিরছেন সোনিয়া, তবে...

‘ক্লোজআপ ওয়ান তোমাকেই খুঁজছে বাংলাদেশ’ রিয়েলিটি শোতে সোনিয়ার অবস্থান ছিল চতুর্থ। কিন্তু সুরেলা কণ্ঠ ও অসাধারণ গায়কী আর ফ্যাশন সচেতনতার কারণে এ শিল্পী তার সমসাময়িকদের মধ্যে আলোচনার শীর্ষে চলে এসেছিলেন। নিজের মৌলিক গান প্রকাশের পাশাপাশি সিনেমাতেও গান গাওয়া নিয়ে তখন তার ব্যস্ততা ছিল বেশ। শুধু গান প্রকাশ নিয়েই নয়, স্টেজ শোতেও দারুণ ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছিলেন তিনি। এক কথায় সোনিয়া তার গান দিয়ে শ্রোতা দর্শকের মাঝে যেমন মুগ্ধতা ছড়িয়েছিলেন ঠিক তেমনি সংগীত পরিচালকদের কাছেও পছন্দের শীর্ষে চলে এসেছিলেন তিনি। কিন্তু নিজের সেই জনপ্রিয়তা পেছনে ফেলে বছর দশেক আগে সোনিয়া জহির আহমেদ পলাশকে বিয়ে করে পাড়ি জমান কানাডার মন্ট্রিয়লে। সেখানেই স্বামী, সংসার ও দুই সন্তান আয়েশা, হামজাকে নিয়ে সুখেই আছেন তিনি। পহেলা বৈশাখ এলেই সারা দেশে তার গাওয়া গান ‘বাজেরে বাজে ঢোল আর ঢাক এলোরে পহেলা বৈশাখ’ দিনব্যাপী বাজতেই থাকে।

তার একক অ্যালবাম ‘নিঠুর বাঁশি’র গান এটি। তার ‘শুধু তোমাকেই ভালোবাসি’ অ্যালবামের গানও শ্রোতাদের মুগ্ধ করে। রিয়েলিটি শো চলাকালীন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের লেখা ও সুর করা ‘অনেক সাধনার পরে আমি পেলাম তোমার মন’, রেনেসাঁ ব্যান্ডের ‘ও নদীরে তুই যাস কোথায় রে’ গানগুলো গেয়েও সেই সময় আলোড়ন সৃষ্টি করেছিলেন সোনিয়া। ২০১২ সালে সর্বশেষ যখন এ শিল্পী দেশে এসেছিলেন তখন বেশকিছু নতুন গান করেছিলেন এবং স্টেজ শোতে অংশ নিয়েছিলেন। দীর্ঘদিন পর সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা হয় সোনিয়ার। তিনি বলেন, ইচ্ছে আছে আগামী নভেম্বরে দেশে আসার। কারণ দীর্ঘদিন হলো আসা হয় না। পরিবারের অনেকের সঙ্গে দেখাও হয় না। খুব মিস করি গানের সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণা আমার মা, মাটি আর দেশকে, দেশের মানুষকে। মিস করি আমার সংগীতময় জীবনের দিনগুলো। তবে এবার দেশে আসার পর নতুন গান করবো কী না তা এখনই বলতে পারছি না। কারণ এখন আমি আমার সংসার জীবন, স্বামী এবং সন্তানকে নিয়েই বেশি ব্যস্ত। সোনিয়া জানান, কানাডা যাওয়ার পর সেখানে বেশকিছুদিন স্টেজ শোতে পারফর্ম করেছিলান। তবে একসময় সংসার জীবন নিয়ে ব্যস্ত হয়ে ওঠার কারণে দীর্ঘদিন সেখানেও স্টেজ শোতে আর পাওয়া যাচ্ছে না তাকে।