আন্তর্জাতিকখেলার খবরজাতীয়দেশজুড়ে

বাংলাদেশের নতুন কোচ ডমিঙ্গোর বেতন কত?

অনেক জল্পনা-কল্পনার অবসান করে দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক কোচ রাসেল ডমিঙ্গোকে বাংলাদেশের নতুন কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।  টাইগারদের প্রধান কোচ হিসেবে দুই বছরের চুক্তিতে নিয়োগ পেলেন তিনি। মাইক হেসন আলোচানার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকলেও বিসিবির আস্থা ডমিঙ্গোতেই।

আজ শনিবার দুপুরে মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বাংলাদেশর প্রধান কোচ হিসেবে তার নাম ঘোষণা করেন।

বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘সবচেয়ে বেশি প্রাপ্যতা। সে (রাসেল ডমিঙ্গো) বলেছে আমার কোনো ছুটির দরকার নেই। আমার কোনো পিছুটান নেই। আমি এই খেলোয়াড়দের সঙ্গেই সময় দিতে চাই।’

পাপন আরও বলেন, ‘সে আমাদের চার বছরের একটা পরিকল্পনা দিয়েছিল। অন্যরাও দিয়েছে। কিন্তু ও সামনাসামনি দিয়েছে। কেউ স্কাইপিতে দিয়েছে, কেউ লিখিত দিয়েছে। কাজেই এদিক দিয়ে চিন্তা করলে সে এগিয়ে ছিল।’

বাংলাদেশের প্রধান কোচ আগামী ২১ আগস্ট বাংলাদেশ আসবেন। আফগানিস্তানের বিপক্ষে এক ম্যাচের টেস্ট সিরিজ দিয়ে শুরু হবে তার মিশন। ৫ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে এ টেস্ট ম্যাচ শুরু হবে। এর পরেই আছে ত্রিদেশীয় সিরিজ। আফগানিস্তান-জিম্বাবুয়েকে সঙ্গে নিয়ে এই সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। এই দুটি সিরিজ শুরুর আগে ডোমিঙ্গোর হাতে সময়ও বেশি নেই।

কত টাকা বেতনে ডমিঙ্গো বাংলাদেশের কোচ হয়ে আসছেন? এমন প্রশ্ন বিসিবি সভাপতি এড়িয়ে গেছেন। তবে আমাদের সময় অনলাইনকে এক বিশ্বস্ত সূত্র জানিয়েছে, ডমিঙ্গোর বেতন ২০ হাজার ডলারের (প্রায় ১৭ লাখ) কম নয়। বরং তার চেয়ে বেশি। অর্থ্যাৎ ২১-২২ হাজার ডলার (১৭ থেকে ১৮ লাখ) হতে পারে মাসে। বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার ডলার বেতন পেতেন হাথুরুসিংহে। সদ্য বিদায় নেওয়া রোডস পেতেনে ১৭ থেকে ১৮ হাজার ডলার। তবে বাংলাদেশ পারফর্মেন্স ভালো করলে বেতন ভাতাদি বাড়তে থাকবে। দেওয়া হবে বোনাসও।

সূত্র আরও জানিয়েছে, এ ছাড়া সঙ্গে থাকবে আবাসন সুবিধা। থাকবে সার্বক্ষণিক ড্রাইভারসহ গাড়ি। দেশের আইনশৃঙ্খলার ওপর ভিত্তি করে দেওয়া হবে নিরাপত্তাকর্মীও। কোচরা সাধারণত ইচ্ছামতো দুই জায়গায় থাকতে পারেন। গুলশান-বনানীতে অথবা কোনো পাঁচতারকা হোটেলে। যেখানেই থাকুক না কেন খরচ বিসিবির।

২০১২ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে কোচিংয়ের যাত্রা শুরু করেন ডমিঙ্গো। পরের বছরই ২০১৩ সালে গ্যারি কারেস্টেনের জায়গায় সব ফরম্যাটে তিনি দায়িত্ব নেন। এর আগে আরেক দক্ষিণ আফ্রিকান বোলার শার্ল ল্যাঙ্গাভেল্টকে দুই বছরের চুক্তিতে বোলিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দেয় বিসিবি।